বাঁচতে হলে জানতে হবে – মাল্টি-লেভেল মার্কেটিং কি?

বাঁচতে হলে জানতে হবে – মাল্টি-লেভেল মার্কেটিং কি?

আমরা সচরাচর পত্রিকায় দেখতে পাই হয় মাল্টি-লেভেল মার্কেটিং বিষয়ক মুখরোচক সংবাদ। বলা বাহুল্য আমরা বেশিরভাগ মানুষ পত্রিকার ধারণার উপরই নির্ভর করে তথ্য বিনিময় করি। এ বিষয়ে না জানার দরুন আপনিও এমএলএম এর নামে প্রতারণার শিকার হতে পারেন। এমএলএম (MLM) মানে মাল্টি-লেভেল মার্কেটিং কিন্তু এদেশে এমএলএম মানে প্রতারণার অন্যতম হাতিয়ার।
এই এমএলএম কনসেপ্ট বাংলাদেশ এসে এর সংজ্ঞা, ব্যবহার, বৈশিষ্ট্য, গুন ও দোষ সবই হারিয়েছে। এমএলএম আইনও অকার্যকর হয়ে রয়েছে।
বর্তমানে মাল্টি-পারপাস, সমবায় সমিতি, এনজিও, ইন্টারনেটের মাধ্যমে আয়, ফ্ল্যাট বা প্লট, ডেভেলপার বিজনেস যে সেক্টরই দূনীর্তি বা অনিয়ম হোক না কেন এটিকে এমএলএম বলে চালিয়ে দেয়া হয়। এর বিশেষ একটি কারণ হলো এমএলএম আইন নতুন এবং এখন পর্যন্ত এই আইনে কারো শাস্তি হয়নি। যে আইন নতুন সে আইনের ধারায় অপরাধী হলে আপনার বেঁচে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বিধায় এটিকে অনেকে স্বইচ্ছেয় ব্যবহার করছে।
এমএলএম নিয়ে এত আলোচনা ও সমালোচনা আছে বিধায় এ বিষয়ে কিছু জ্ঞান থাকা আমাদের প্রয়োজন আছে বৈকি বিশেষ করে বিনিয়োগকারী ও উদ্যোক্তাদের।
মাল্টি-লেভেল মার্কেটিং (এমএলএম) হলো ডিরেক্ট সেলিং এর একটি শাখা। ডিরেক্ট সেলিং অনেক পুরোনো বিষয় হলেও মাল্টি-লেভেল মার্কেটিং এর জন্ম প্রায় ৭২বছর পূর্বে যুক্তরাষ্ট্রে। এটি এক ধরনের বাজারজাতকরণ বা বিপণন কৌশল মাত্র। বস্তুত আমরা মূল ধারা থেকে সরে গিয়ে এটিকে ‍শুধু মানুষ জয়েন/ইনভলভ্ করানোর ব্যবসায় পরিণত করেছি। প্রকৃত বিষয়টি আমাদের দেশীয় উদ্যোক্তাদের অজানা এবং একটা নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির দরুন আগ্রহ তৈরী হচ্ছে না। আবার এমন অনেক বিনিয়োগকারী আছেন যারা না বুঝে এমএলএম কোম্পানীর সাইনবোর্ডে বিনিয়োগ করেন এটা তার জন্য যেমন বিপদজনক তেমনি পরিবেশের জন্যও নেতিবাচক। আমি প্রথম কিস্তিতে পৃথিবীর সেরা কয়েকটি ডিরেক্ট সেলিং বা এমএলএম প্রতিষ্ঠানের সংক্ষিপ্ত বিবরণ তুলে ধরেছি। এ থেকে আমরা অনুমান করতে পারবো এমএলএম ইন্ডাষ্ট্রি কত বড় ও ব্যাপক। আমি পর্যায়ক্রমে এমএলএম বিষয়টি নিয়ে আরো আলোচনা করব ইনসা-আল্লাহ।
আশা করি সবাই সাথে থাকবেন: www.facebook.com/mmrahmanarif/

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!