নেগেটিভ কথা – পজেটিভ ভাবনা

সম্মানিত লিডাররা যখন যে কোম্পানীতে যান তখন সে অনুযায়ী বোল পাল্টান। এর পক্ষে-বিপক্ষে অসংখ্য যুক্তি আছে। কমিটমেন্ট ঠিক রেখে জায়গা বদল কোন দোষের কিছু নয় কারন এটি একটি স্বাধীন ব্যবসা। আবার দায়বদ্ধতা তৈরী করে পালিয়ে বেড়ানো কোন ভদ্রলোকের কাজ নয়।
আসলে নতুনরা কাঁচা আটার দলার মত যা করতে চাইবেন তাই হবে, মাথার মধ্যে মুটিভেশন দিয়ে ঠেসে দিলে তাও সেট হবে আবার ভাল এডুকেশন দিলে সেটাও দীর্ঘমেয়াদে ভাল কাজ দিবে।
ইদানিং কিছু লিডার পোস্টে কমেন্ট করে, “নিজে একটা কোম্পানী করে দেখান” “আপনার অর্জন কি?” আমি বলছি এগুলো এক ধরনের সুক্ষ বেয়াদবি। সবার কোম্পানী করার প্রয়োজন নেই, তাই যদি হয় তবে ঘরে ঘরে কোম্পানী পয়দা হবে। যারা কোম্পানী করেছে তাদের সার্পোট দেয়া, সঠিক পথ দেখানো, সাধারন পরিবেশকদের শেখানো, সচেতনতা তৈরী এটাও বিশাল কাজ। সবচেয়ে বড় বিষয় হলো একটা সুন্দর পরিবেশ তৈরী করা।
বাংলাদেশে যখন মাল্টি-লেভেল মার্কেটিং আইন হয়েছে তখন এ বিষয়ে কাজ করার জন্য কোন কোম্পানীর মালিক বা লিডারকে ডাকেনি, ডেকেছে এম. রহমান আরিফ-কে। যার কোন কোম্পানী নেই, অফিস নেই, কোটি কোটি টাকা নেই। এ ভাগ্যটা ১কোটিতে ১জনের হয়। আমার উদ্দেশ্য ছিল খুবই পরিস্কার তাই বড় বড় স্যারদের সাথে মিনিষ্ট্রিতে বসে সেলফি তুলে প্রচারণার প্রয়োজন মনে করিনি। দিনের পর দিন নিজের চাকুরীর মায়া ভুলে এই আইন নিয়ে দৌড়েছি কারন একটাই – স্বীকৃতি। আজ এমএলএম ব্যবসা স্বীকৃত বলেই স্বাধীনভাবে কথা বলতে পারছি। আজ আইন আছে বলেই রীট করার সুযোগ হয়েছে। আইন আছে বলেই পুরোনো লাইসেন্স দেখিয়ে এখনও মনোবল ফিরিয়ে আনে।
একটা মানুষ ১৫/১৬ বছর এই এমএলএম জন্য কি অবদান রেখেছে সেটা না ভেবে স্টুপিডের মত কমেন্ট বক্সে বাজে কথা বললেই সুধী হওয়া যায় না। আমার বিগত পনের বছরের কোন লেখার অযৌক্তিক মনে হলে দেখিয়ে দিন, সেদিন থেকে লেখালেখি বন্ধ করে দিব। সমস্যাটা হলো এদেশের মানুষ শান্তিপ্রিয়, যদি গ্যাম্বলারদের সঠিক সময়ে ধরে ধরে জুতাপিটা করত তবে অনেক আগেই এমএলএম ব্যবসা থেকে শয়তান বিতাড়িত হতো। আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়া যায় কে কি করছে কিন্তু মানুষ যত মন্দই হোক ভাল পথে ফিরে আসে এটাই সত্যি, তাই আমরাও ভাল কিছুর অপেক্ষায়।
ক্ষমা করবেন কিছু নেগেটিভ শব্দ উচ্চারন করেছি।
সম্মান আর ভালবাসার চেয়ে বড় অর্জন কিছুই হয় না।
ধন্যবাদ

 

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!